Email: info@sunbd.org
ময়মনসিংহ শুভসংঘের আয়োজন জলাবদ্ধতা রক্ষায় সচেতনতামূলক পদযাত্রা

সচেতনতামূলক পদযাত্রায় ময়মনসিংহ শুভসংঘের বন্ধুরা

প্রতি বর্ষায়ই একটু ভারি বৃষ্টি হলে ময়মনসিংহ শহরের প্রধান সড়কসহ অলিগলি-হাটবাজার তলিয়ে যায়। চরম দুর্ভোগে পড়েন নাগরিক ও ব্যবসায়ীরা। এ সমস্যার মূল কারণ ময়মনসিংহ শহরের ড্রেনেজ ব্যবস্থার বেহাল দশা। আর এ বেহাল দশার জন্য নাগরিকদের অসচেতনতা এখন বড় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাসাবাড়ির ময়লা-আবর্জনা, পলিথিন, পানির বোতল ড্রেনে ফেলার কারণে এখন এ শহরের অনেক ড্রেনই তার স্বাভাবিক কার্যকারিতা হারিয়েছে।

তাই নাগরিকরা যেন সচেতন হয়, ড্রেনে যেন ময়লা-আবর্জনা না ফেলে, এমনই আকুল আহ্বান জানিয়ে ১৩ জুলাই বুধবার এক জনসচেতনতামূলক পদযাত্রা কর্মসূচি পালন করল কালের কণ্ঠ শুভসংঘ ময়মনসিংহ শাখা। এমন মহতী আয়োজনে সক্রিয়ভাবে ও আন্তরিকতার সঙ্গে যুক্ত হলেন শহরের বিভিন্ন সামাজিক, পেশাজীবী, বেসরকারি সংস্থা এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতাকর্মী ও সদস্যরাও। শুভসংঘ ছাড়া এ কর্মসূচি সফল করতে ভূমিকা রাখে লায়ন্স ক্লাব অব ময়মনসিংহ গ্রেটার, সোশ্যাল ইউনিটি ফর নার্সিং (সান), আনন্দ মোহন কলেজ রোভার স্কাউট গ্রুপ, গ্রামাউস, তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থা, অনসাম্বল থিয়েটার, ওয়ার্ল্ড ভিশন ময়মনসিংহ উন্নয়ন সংঘ, নিথুয়া একাডেমি, জনকল্যাণ, গণকল্যাণ পরিষদ (জিকেপি), ডাইলপট্টি ব্যবসায়ী সমিতি, দোকান মালিক সমিতি ঐক্য পরিষদ, ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, মধ্যবাড়েরা পাঠাগার, এপেক্স ক্লাব অব ব্রহ্মপুত্র, টিআইবির ইয়েস গ্রুপ, এক্স ক্যাডেট অ্যাসোসিয়েশন, আমরা হাতেগোনা কয়েকজন ময়মনসিংহবাসী, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল, ময়মনসিংহ মাদকবিরোধী সংগঠন।

সকাল সোয়া ১১টায় ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে শুরু হওয়া এ পদযাত্রা কর্মসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করেন পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু। এর আগে ব্যানার ও ফেস্টুন নিয়ে পদযাত্রা এগিয়ে যায় শহরের নতুন বাজারের দিকে। পরে পদযাত্রা আবার প্রেস ক্লাব চত্বরেই এসে শেষ হয়। পদযাত্রা কর্মসূচি থেকে ১০ হাজার লিফলেট শহরবাসীর উদ্দেশে বিতরণ করা হয়। ময়মনসিংহ শহরে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টিতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সমন্বয়ে পদযাত্রা কর্মসূচি এটিই প্রথম। তাই এ কর্মসূচি নিয়ে স্থানীয় সব মহলেই উৎসাহ-উদ্দীপনার কমতি ছিল না। স্বতঃস্ফূর্তভাবে শহরের অনেক বিশিষ্ট নাগরিক এতে অংশ নেন। এ ছাড়া পথচারী ও পথিকদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য ছিল ব্যান্ড পার্টির দল। শহরের বিভিন্ন মোড়ে ও সড়কে পথচারী ও নাগরিকরা এমন আয়োজনকে স্বাগত জানান। পদযাত্রা কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন এক্স ক্যাডেট অ্যাসোসিয়েশন ময়মনসিংহ বিভাগের সভাপতি আখতারুজ্জামান বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক ওবায়েদ হোসেন, লায়ন্স ক্লাব অব ময়মনসিংহ গ্রেটারের সভাপতি নাজমুল ইসলাম, সহসভাপতি আশফাক উদ্দিন আহম্মেদ, যুগ্ম সম্পাদক এখলাছ উদ্দিন খান, জনকল্যাণ সভাপতি নুরুল আমীন কালাম ও সাধারণ সম্পাদক শহীদুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নেতা শংকর সাহা, সমাজসেবক নজরুল ইসলাম খান লেবু, নজীব আশরাফ, সুমন চন্দ্র ঘোষ, তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক খন্দকার ফারুক আহম্মেদ, গ্রামাউস নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুল খালেক, প্রেসিডেন্ট রোভার স্কাউট অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত মো. রেজাউল করিম, কবি ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ইয়াজদানী কোরায়শী কাজল, জয়দেব সাহা, রোটারি ক্লাব অব ময়মনসিংহ টাউনের প্রেসিডেন্ট রেহেনা আক্তার ডলি, ময়মনসিংহ মাদকবিরোধী সংগঠনের সভাপতি আজিজুর রহমান আরিফ, টিআইবির এরিয়া ম্যানেজার আলমগীর কবীর, আলোকিত ময়মনসিংহ পত্রিকার সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিক, সাংবাদিক শহীদুল আলম খসরু, শরীফুজ্জামান টিটু, কামাল হোসেন, নাজমুল হুদা মানিক, এম এ মোতালেব, নিথুয়া একাডেমির সভাপতি বাবলী আকন্দ, আবু বকর সিদ্দিক মুকিত, মাসুম আহম্মেদ, আনোয়ার পরভেজ, শাহনূর রহমান রিপন, রেজা প্রমুখ।

এমন মহতী উদ্যোগ প্রসঙ্গে পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, সমাজের সমস্যা দূর করতে হলে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি ও সামাজিক আন্দোলনের বিকল্প নেই। তিনি বলেন, সবাই যদি শুভসংঘের মতো এমন আন্দোলনে যুক্ত হতো, তাহলে এ শহরের চেহারাই পাল্টে যেত। তিনি এমন যেকোনো উদ্যোগে সর্বতোভাবে যুক্ত থাকার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

কর্মসূচির সমন্বয়ক কালের কণ্ঠ’র ময়মনসিংহের নিজস্ব প্রতিবেদক নিয়ামুল কবীর সজল জানান, এ সচেতনতামূলক কর্মসূচিটি পুরো জুলাই মাস ধরেই চলবে। পাড়া-মহল্লায়ও এমন পদযাত্রার আয়োজন চলবে।